বাজারে ভোজ্য তেলের ৯৫ ভাগ ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধ: শিল্পীমন্ত্রী


বর্তমানে দেশের মোট প্যাকেটজাত ভোজ্য তেলের ৯৫ শতাংশ এবং ড্রামজাত ভোজ্যতেলের ৪১ শতাংশ ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধকরণের আওতায় এসেছে বলে জানিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন।  

শনিবার (৭ নভেম্বর) সরকারি এক তথ্য বিবরণীতে (নম্বর-৪২৫৯) শিল্পমন্ত্রীর বরাত দিয়ে এ তথ্য জানানো হয়েছে। শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন গতকাল (৬ নভেম্বর) বিশ্ব খাদ্যসমৃদ্ধকরণ সম্মেলনের অংশ হিসেবে আয়োজিত ‘সংকটকালে টিকে থাকতে সক্ষম খাদ্যব্যবস্থা-খাদ্য সমৃদ্ধকরণের ভূমিকা’ শীর্ষক উচ্চপর্যায়ের ভার্চুয়াল সভায় দেয়া বক্তব্যে এ তথ্য জানিয়েছেন।

ভার্চুয়াল সভায় শিল্পমন্ত্রী বলেন, ‘অপুষ্টি দূরীকরণে বাংলাদেশ ধারাবাহিক প্রয়াস অব্যাহত রেখেছে। এ লক্ষ্যে ২০১৩ সালে ভোজ্য তেলে ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধকরণ বাধ্যতামূলক করে আইন পাস, আয়োডিন ঘাটতি পূরণে মন্ত্রিপরিষদে আয়োডিনযুক্ত লবণ আইন-২০২০ অনুমোদন এবং জাতীয় খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তা নীতিতে খাদ্য সমৃদ্ধকরণের বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। অষ্টম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনায়ও এটি অন্তর্ভুক্ত করা হবে।’

শিল্পমন্ত্রী আরও বলেন, ‘বাংলাদেশ সরকার গৃহীত এসব উদ্যোগের ফলে বর্তমানে দেশের মোট প্যাকেটজাত ভোজ্য তেলের ৯৫ ভাগ এবং ড্রামজাত ভোজ্যতেলের ৪১ ভাগ ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধকরণের আওতায় এসেছে। বর্তমান সরকার গম ও ভুট্টার আটায় ভিটামিন-‘এ’ সমৃদ্ধ করার কর্মসূচি বাস্তবায়নের পরিকল্পনা নিয়ে অগ্রসর হচ্ছে। এ কর্মসূচি বাস্তবায়িত হলে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর পুষ্টিমান পরিস্থিতির ব্যাপক উন্নতি ঘটবে।’

করোনা মহামারির প্রভাবে বিশ্বব্যাপী মানুষের জীবন-জীবিকা মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে উল্লেখ করে নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেন, ‘দরিদ্র মানুষের জীবিকায় করোনার ভয়াবহ প্রভাব মোকাবিলায় বাংলাদেশ সরকার নিম্ন আয়ের মানুষকে নগদ আর্থিক সহায়তার পাশাপাশি সুলভমূল্যে খাদ্য বিতরণসহ সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনি জোরদার করেছে। এর পাশাপাশি অদৃশ্য ক্ষুধা মোকাবিলায় বিপুল পরিমাণে খাদ্যে ভিটামিন ও মিনারেল সমৃদ্ধকরণ কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে।’

বাংলাদেশের জনগণের পুষ্টি পরিস্থিতির উন্নয়নে শিল্প মন্ত্রণালয়, গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ইম্প্রুভড নিউট্রেশন (GAIN), অন্যান্য উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা এবং বেসরকারি খাত একযোগে কাজ করছে উল্লেখ করে শিল্পমন্ত্রী বলেন, ‘পুষ্টি ঘাটতি দূরীকরণে সরকার বায়ো-ফর্টিফাইড ক্রপস বা জৈবসমৃদ্ধ ফসলের উৎপাদন বাড়াতে আগ্রহী। জিংকসমৃদ্ধ চাল মানবদেহে জিংকের ঘাটতি পূরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। সরকার এ চালের উৎপাদন ও ভোগ বাড়ানোর ওপর বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে।’
 

ব্রেকিংনিউজ/কেআই/এসআই





Was this helpful?

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে